যে চার অসুখে চুল ঝরে

১৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:০৮ এএম

Runner Media

লাইস্টাইল ডেস্ক

দৈনিক ৫০ থেকে ১০০টি চুল ঝরে যাওয়াটা স্বাভাবিক। কিন্তু এই চুল পড়ার সমস্যা যদি মারাত্মক আকার নেয়, তাহলে বুঝতে হবে শরীরে কোনো অন্য রোগ বাসা বেঁধেছে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চুল পড়ার লক্ষণ অনেক সময়ই অন্য কোনো রোগে আক্রান্ত হওয়ার ইঙ্গিত দেয়। তাই চুল পড়ার সমস্যাকে একেবারেই হালকাভাবে না নেওয়ার পরামর্শ তাদের। চলুন জেনে নেওয়া যাক, কোন কোন অসুখ শরীরে বাসা বাঁধলে চুল পড়তে শুরু করে।

পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোম
সম্প্রতি অনেক নারীর মধ্যেই পলিসিস্টিক ওভারি সিনড্রোমের সমস্যা দেখা দিচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হরমোনের সাম্যতা বজায় না থাকার কারণেই মূলত এই সমস্যা দেখা দেয়। এ সমস্যা দেখা দিলে নারীদের মধ্যে অনিয়মিত মেনস্ট্রুয়ালের সমস্যা দেখা দেয়। এছাড়াও অত্যাধিক চুল পড়া, চুল রুক্ষ শুষ্ক নিষ্প্রাণ হয়ে যাওয়া এবং চুল পাতলা হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যাগুলোও দেখা দেয়। তাছাড়া এই অসুখে ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যাও দেখা দেয়।

থাইরয়েডের সমস্যা
অধিক মাত্রায় চুল পড়ার সমস্যা দেখা দিলে থাইরয়েড টেস্ট করিয়ে নেওয়া জরুরি। বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরে থাইরয়েডের সমস্যা থাকলে চুল রুক্ষ হয়ে যায়। সেই সঙ্গে চুলও পড়তে শুরু করে। পাশাপাশি স্মৃতিশক্তিতেও প্রভাব ফেলে থাইরয়েড।


অ্যানিমিয়া
শ্যাম্পু করার সময় যদি চুল পড়ার সমস্যা লক্ষ্য করেন, তাহলে আপনার শরীরে বাসা বেঁধেছে অ্যানিমিয়া! বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, নারীদের মধ্যে অ্যানিমিয়ার সমস্যা যেমন আজকাল প্রায়ই দেখা যায়, তেমনই অ্যানিমিয়ার কারণে চুল পড়ার সমস্যাও দেখা দেয়।

মানসিক সমস্যা
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অধিক হারে চুল ঝরে যাওয়ার একটা কারণ মানসিক চাপ। তাই মানসিক চাপ থেকে বাঁচতে এবং চাপের কারণে চুল পড়া প্রতিরোধ করতে মানসিক স্বাস্থ্যের দিকে নজর দেওয়া জরুরি বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। মানসিক স্বাস্থ্য উন্নত করতে যোগাভ্যাস কিংবা মেডিটেশনও করতে পারেন।

আরএম/আরআর