কানাডার জালে ক্রোয়েশিয়ার এক হালি গোল

২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৩৬ পিএম

সংগৃহীত ছবি

Runner Media

ডেস্ক রিপোর্ট: 

কাতার বিশ্বকাপে চমক আর অঘটন চলছেই। গ্রুপ ‘এফ’-এর ম্যাচে মরক্কোর বিপক্ষে অঘটনের শিকার হয়েছে বেলিজিয়াম। আরেক ম্যাচেও শুরুতেই পাওয়া যাচ্ছিল অঘটনের গন্ধ। গত বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে এই বিশ্বকাপের দ্রুততম গোল করে কানাডাকে লিড এনে দেন আলফন্সো ডেভিস। তবে, ৬ মিনিটের ব্যবধানে ২ গোল করে খেলা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে নেয় ক্রোয়েশিয়া। দ্বিতীয়ার্ধে আরও দুটি গোল করে সহজ জয় ছিনিয়ে নেয় ক্রোয়াটরা। এই হারে কানাডার বিদায় প্রায় নিশ্চিত হয়ে গেল।

রোববার (২৭ নভেম্বর) খলিফা ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে গ্রুপ 'এফ' এর ম্যাচে কানাডার বিপক্ষে ৪-১ গোলে জয় পেয়েছে ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচে জোড়া গোল করেছেন আন্দ্রে ক্রামারিচ। এ দিন ম্যাচ শুরু হতে না হতে লুকা মদ্রিচদের চমকে দেন আলফন্সো ডেভিস। ম্যাচ শুরুর ৬৮ সেকেন্ডের মাথায় বায়ার্ন মিউনিখের ফুলব্যাক আলফন্সো ডেভিসের গোলে লিড নেয় কানাডা।

তবে, ম্যাচের ৩৬ মিনিটে আন্দ্রে ক্রামারিচের গোলে সমতায় ফেরে গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া। বাঁ-প্রান্তে জায়গা করে নেন ইভান পেরিসিচ। সেখান থেকে বক্সে ক্রামারিচের উদ্দেশ্যে বল বাড়ান তিনি। দারুণ ফিনিশিংয়ে গোল করেন তিনি।

গোল পেয়ে আরও উজ্জীবিত হয়ে ওঠে ক্রোয়েশিয়া। গতি বাড়ায় আক্রমণের। ৪৪ মিনিটে দারুণ এক দৌড়ে কানাডার রক্ষণভাগ তছনছ করে ফেলেন জুরানোভিচ। এরপর পাস বাড়ান মার্কো লিভজার উদ্দেশ্যে। প্লেসিং শটে চমৎকার গোল করে দলকে এগিয়ে দেন তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধে কানাডা পাত্তাই পায়নি ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে। বল দখলে সমানে সমান থাকলেও কানাডার মধ্যমাঠ ও রক্ষণের মাঝের ফাঁকা জায়গা কাজে লাগিয়ে একের পর এক বিপজ্জনক আক্রমণ চালাতে থাকেন ইভান পেরিসিচ-মদ্রিচরা। তেমনই এক দুর্দান্ত এক আক্রমণ থেকে ৬৯ মিনিটে তৃতীয় গোলের দেখাও পেয়ে গেছে গতবারের রানার্সআপরা। ডিবক্সে দারুণ বোঝাপড়ায় পেরিসিচের পাস নিয়ন্ত্রণে নিয়ে প্লেসিং শটে গোল করেন ক্রামারিচ। ম্যাচে এটি দ্বিতীয় গোল এই তারকার।

যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে ফের গোলের দেখা পায় ক্রোয়েশিয়া। কানাডার রক্ষণভাগের ভুলে বল পেয়ে যায় ক্রোয়েশিয়া। ছোট্ট একটা স্প্রিন্টের পর অরিসিচ পাস দেন লভ্রে মেজারকে। সহজ কাজটুকু সারতে ভুল করেননি তিনি ।

২০১৪ বিশ্বকাপে ক্যামেরুনের বিপক্ষে মারিও মান্দজুকিচের পর প্রথম ক্রোয়েশিয়ান হিসেবে ম্যাচে জোড়া গোল করলেন ক্রামারিচ। আর ৩৩ বছর ২৯৮ দিন বয়সে জোড়া অ্যাসিস্ট করে সবচেয়ে বেশি বয়সে জোড়া অ্যাসিস্টের রেকর্ড গড়েন ইভান পেরিসিচ।

এই হারে বিশ্বকাপ থেকে কানাডার বিদায় মোটামুটি নিশ্চিত হয়ে গেল। ম্যাচের আগে অবশ্য কথার লড়াইয়ে বেশ জমে উঠেছিল আবহ। বেলজিয়ামের বিপক্ষে ম্যাচে দারুণ খেলে হারার পর কানাডার কোচ হার্ডম্যান শিষ্যদের উজ্জীবিত করতে ক্রোয়েশিয়াকে নিয়ে অশালীন ইঙ্গিত করেন। যা নিয়ে রীতিমতো ক্ষ্যাপা ছিল গোটা ক্রোয়েশিয়া শিবির। এমনকি ক্রোয়েশিয়ার দৈনিকে প্রকাশিত হয়েছে হার্ডম্যানের নগ্ন ছবি। বড় ব্যবধানে হারিয়ে সেই ইঙ্গিতের প্রতিশোধ নিল দলটি।

আর এম/ এম সি