ব্রিটেনে ৩০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ মূল্যবৃদ্ধি হতে পারে

২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৭ এএম

Runner Media

যুক্তরাজ্য অফিস

 

ব্রিটেনের স্পেন্ডিং ওয়াচডগ তাদের প্রকাশিত এক গবেষণায় জানিয়েছে দ্রব্যমূল্যের বৃদ্ধি গত ৩০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ হতে পারে। ব্রিটেনজুড়ে করোনার লকডাউন পরবর্তী সময়ে মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে যাওয়ায় অন্য যেকোনো সময়ের চেয়ে বর্তমানে মানুষের জীবন যাপনের ব্যয় ব্যাপক হারে বেড়েছে।

অর্থনীতির পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বর্তমানে মুদ্রাস্ফীতির হার ৩.১ শতাংশ যা ২০২২ সালে ৪ শতাংশে পৌঁছাতে পারে। তবে যুক্তরাজ্যের অফিস ফর বাজেট রেসপন্সিবিলিটি জানিয়েছে, আগামী বছর নাগাদ মুদ্রাস্ফীতি ৫ শতাংশ হতে পারে।

চ্যান্সেলর রিশি সুনাক ব্রিটেনের বাসাবাড়িতে ব্যয় বাড়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। বাজেট ঘোষণার সময় যুক্তরাজ্যের বর্তমান অর্থনৈতিক অবস্থাকে 'স্বল্প মেয়াদে স্থিতিশীল' হিসেবে বর্ননা করেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন আগামী ছয় মাস পরে ব্রিটেনের অর্থনীতি মহামারি পূর্ব অবস্থায় ফিরে যাবে।

এছাড়া গত সেপ্টেম্বরের চেয়ে যুক্তরাজ্যে মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে যাওয়ার জন্য জ্বালানি সংকট ও পরিবহন সমস্যাকে দায়ী করেছেন রিশি সুনাক।

তিনি বলেন, দেশজুড়ে পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তা কাটাতে কয়েকমাস সময় লাগবে। এটা রাতারাতি সমাধানের বিষয় নয় বলেন জানান তিনি।

বেক্সিট পরবর্তী ব্রিটেনে নতুন কিছু সমস্যা তৈরি হয়েছে, যেগুলোর মধ্যে রয়েছে বন্দরগুলোতে মালামাল ছাড়াতে দেরি হওয়া এবং কর্মচারি সমস্যা। এর ফলে বিলম্বে পণ্য পরিবহন সংকটের কারণে জীবন যাপনের ব্যয় বেড়েছে। এরমধ্যে করোনা মহামারী পরিস্থিতির কারণে লকডাউন এই সমস্যা আরও বাড়িয়ে তোলে।

আর এম/এএ